SylhetNewsWorld | ইউক্রেনে সামরিক ঘাঁটিতে রুশ বিমান হামলায় নিহত ৯ - SylhetNewsWorld
সর্বশেষ

ইউক্রেনে সামরিক ঘাঁটিতে রুশ বিমান হামলায় নিহত ৯

  |  ২০:৪৯, মার্চ ১৩, ২০২২

পোল্যান্ড সীমান্তের কাছে ইউক্রেনের লভিভ শহরে একটি সামরিক ঘাঁটিতে রুশ সেনার হামলায় কমপক্ষে নয়জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন অন্তত ৫৭ জন।

রাশিয়ান যুদ্ধবিমানগুলো পোলিশ সীমান্তের কাছে ওই সামরিক ঘাঁটিতে প্রায় ৩০ টি ক্রুজ ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করেছে। স্থানীয় কর্মকর্তারা রোববার বলেছেন, তারা একটি লক্ষ্যবস্তুর বিরুদ্ধে ক্ষিপ্র এবং দীর্ঘস্থায়ী বিমান হামলা শুরু করেছে যা যুদ্ধকে ন্যাটোর দোরগোড়ার আরও কাছাকাছি নিয়ে এসেছে।

হামলার পাঁচ ঘণ্টা পরও ঘাঁটিতে আগুন জ্বলছে। হামলায় আহত কয়েক ডজন লোককে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। ঘাঁটিতে থাকা একজন ইউক্রেনীয় সৈনিক যাকে প্রকাশ্যে কথা বলার অনুমতি দেয়া হয়নি তিনি বলেছিলেন যে, সেখানে টর্নিকেট এবং অন্যান্য প্রয়োজনীয় চিকিৎসা সরঞ্জামের ঘাটতি ছিল।

লভিভ আঞ্চলিক সামরিক প্রশাসনের প্রধান ম্যাকসিম কোজিটস্কি বলেছেন যে, কমপক্ষে নয় জন নিহত এবং আরও ৫৭ জন আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে সামরিক কর্মী ও বেসামরিক লোক ছিল। ইউক্রেনের জরুরি পরিষেবাগুলি বলেছে যে, তারা অনুসন্ধান ও উদ্ধার অভিযান চালাচ্ছে।

কর্মকর্তাদের মতে, ইউক্রেনের বিমান প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা ২২টি ক্ষেপণাস্ত্রকে বাধা দিয়েছে, তবে অন্যগুলো ঘাঁটিতে আঘাত করেছে। ‘বিমান প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা কাজ করেছে, বেশ কয়েকটি ক্ষেপণাস্ত্র গুলি করে নামানো হয়েছে,’ কোজিটস্কি একটি সংবাদ সম্মেলনে বলেছিলেন। তিনি ইউক্রেনের উপর একটি নো-ফ্লাই জোন প্রতিষ্ঠার জন্য ন্যাটোকে বারবার আহ্বান জানিয়েছেন, এমন একটি পদক্ষেপ যা পশ্চিমা নেতারা তাদের রাশিয়ার সাথে সরাসরি সামরিক সংঘর্ষে টেনে আনতে পারে এমন উদ্বেগ থেকে সরে আসতে অস্বীকার করেছে।

ইউক্রেনের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, রাশিয়ার দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের সারাতোভ থেকে উড়ে আসা রুশ যুদ্ধবিমান থেকে ক্ষেপণাস্ত্রগুলো নিক্ষেপ করা হয়েছে। তাদের লক্ষ্য ছিল পোলিশ সীমান্ত থেকে এক ডজন মাইলেরও কম দূরে আন্তর্জাতিক শান্তিরক্ষা ও নিরাপত্তা কেন্দ্র। ইউক্রেনের সামরিক কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে বিবিসি ইউক্রেন জানিয়েছে, লভিভ শহরের ইন্টারন্যাশনাল পিস কিপিং অ্যান্ড সিকিউরিটি সেন্টার লক্ষ্য করে বিমান ও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানো হয়েছে। এই ঘাঁটিতে ইউক্রেনের সামরিক বাহিনীর সদস্যদের প্রশিক্ষণ দিয়ে থাকতো ন্যাটো বাহিনী।

এদিকে ইউক্রেনের প্রায় প্রতিটি অঞ্চলে স্থানীয় সময় শনিবার বিমান হামলার সতর্ক সংকেত বাজতে শোনা গেছে বলে বিবিসি জানিয়েছে। খারকিভ, চেরনিহিভ, সুমি ও মারিউপোলের মতো শহরগুলো ঘিরে রেখেছে রুশ বাহিনী। তারা শহরগুলোতে ব্যাপক বোমা হামলা চালাচ্ছে।

ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের উপকণ্ঠে দুই পক্ষের মধ্যে ব্যাপক লড়াই চলছে। কিয়েভে রাশিয়ার সর্বাত্মক হামলার আশঙ্কা করা হচ্ছে। কিয়েভ অঞ্চলের ভাসিলকিভ শহরের কাছে রাশিয়ার রকেট হামলায় ইউক্রেনের একটি বিমানঘাঁটি ধ্বংস হয়ে গেছে। এ ছাড়া ইউক্রেনের সেনাবাহিনীর গোলাবারুদ মজুত করে রাখার একটি স্থাপনায় (ডিপো) রুশ হামলা হয়েছে। ইউক্রেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী দিমিত্রো কুলেবা বলেন, ‘মারিউপোল, খারকিভ, চেরনিহিভসহ একাধিক শহরের বোমাবর্ষণ করেছে রাশিয়া।’ সূত্র: নিউইয়র্ক টাইমস।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ