সর্বশেষ

জর্জিয়ায় ডেমোক্র্যাটপ্রার্থী বিজয়ী

  |  ১৮:০০, জানুয়ারি ০৬, ২০২১

যুক্তরাষ্ট্রের গুরুত্বপূর্ণ জর্জিয়া অঙ্গরাজ্যের সিনেট নির্বাচনে ডেমোক্র্যাট পার্টির প্রার্থী রাফায়েল ওয়ারনক বিজয়ী হয়েছেন। তিনি রিপাবলিকান প্রার্থী কেলি লোফলেরকে হারিয়ে রাজ্যটির প্রথম কোনো কৃষ্ণাঙ্গ সিনেটর হিসেবে নির্বাচিত হলেন।

বার্তা সংস্থা এপি ও গার্ডিয়ানের খবরে এমন তথ্য মিলেছে। রিপাবলিকান প্রার্থী কেলি লোফলের ও ডেভিড পেরডু এবং ডেমোক্র্যাট প্রার্থী রাফায়েল ওয়ারনক ও জোন অসফের মধ্যে এ লড়াই।

৩ নভেম্বরের নির্বাচনে কোনো প্রার্থী জয়ের জন্য প্রয়োজনীয় ৫০ শতাংশ ভোট না পাওয়ায় এ নির্বাচন হয়েছে। এখানে জয়-পরাজয়ের ওপর নির্ভর করছে আগামী দিনে সিনেটের নিয়ন্ত্রণ কার হাতে থাকবে।

বাইডেনের দলের রাফায়েল ওয়ারনক তার নিজের ভাষণে বিজয়ের আভাস দিয়েছেন। তিনি বিজয়ী হয়েছেন বলে টুইটারে পোস্ট দিয়েছেন প্রতিনিধি পরিষদের সাবেক সদস্য স্ট্যাটিস আব্রাস।

স্ট্যাটিস বলেন, আমাদের পরবর্তী সিনেটর রাফায়েলকে স্বাগত। গত জানুয়ারিতে আমার ঘনিষ্ঠ বন্ধু রাফায়েলকে প্রার্থী হতে অনুরোধ করেছিলাম।

তবে রিপাবলিকান কেলি লোফলের এখনও পরাজয় মেনে নেননি। সমর্থকদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আমরা বিজয়ের পথে আছি। এই নির্বাচনে আমরা জয়ী হতে যাচ্ছি।

কেলি বলেন, কংগ্রেসে জো বাইডেনের বিজয়ের স্বীকৃতি দিতে আপত্তি জানাতে আগামীকাল তিনি ওয়াশিংটন ফিরছেন।

গার্ডিয়ানের খবরে বলা হয়েছে, জর্জিয়ায় সিনেটের দুটি আসনেই হারতে যাচ্ছেন রিপাবলিকান প্রার্থীরা। আর ভোটের বৈধতা নিয়েও তারা ভিত্তিহীন অভিযোগ তুলছেন।

কংগ্রেসে পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণ নিতে যুক্তরাষ্ট্রের নবনির্বাচিত প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের ডেমোক্র্যাটিক পার্টিকে দুটি আসনে জিততে হবে। আর বিদায়ী প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের রিপাবলিকান পার্টিকে একটি আসনে জিততে হবে।

এই চার প্রার্থীর কেউই নভেম্বরে অনুষ্ঠিত নির্বাচনে জয়ের জন্য প্রয়োজনীয় ৫০ শতাংশ ভোট পাননি। জর্জিয়ার নির্বাচনী বিধি অনুযায়ী তাই সেখানে আবার ভোট হচ্ছে। বিবিসির খবরে জানা যায়, ৫৯ শতাংশ ভোট গণনা হয়েছে।

স্থানীয় সময় গতকাল মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৮টা পর্যন্ত বুথফেরত জরিপে ৪০ শতাংশ ভোট গণনা করা হয়। বুথফেরত জরিপে রিপাবলিকানদের পক্ষে ৪৯ শতাংশ ও ডেমোক্র্যাটদের পক্ষে ৪৮ শতাংশ সমর্থন দিয়েছে।

কৃষ্ণাঙ্গদের ২৯ শতাংশ ভোট রয়েছে। তাদের ভোট ডেমোক্র্যাট প্রার্থীর পক্ষে। আর সংখ্যাগরিষ্ঠ শ্বেতাঙ্গদের ভোট রিপাবলিকানদের পক্ষে।

নভেম্বরে অনুষ্ঠিত মার্কিন নির্বাচনে নিজেদের পছন্দের ছাপ রয়েছে জর্জিয়ার নির্বাচনেও। ট্রাম্পের সমর্থক জর্জিয়াবাসী পেরডু ও লোফলেরকে ভোট দিচ্ছেন। আর বাইডেনের সমর্থকরা ভোট দিচ্ছেন ওয়ারনক ও অসফকে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ