সর্বশেষ

৩০ বছর জেল খেটে ফিরলেন মোসাদের গুপ্তচর; প্রধানমন্ত্রীর সংবর্ধনা

  |  ০৯:০৬, জানুয়ারি ০৪, ২০২১

যুক্তরাষ্ট্রে তিন দশকের বেশি সময় কারাগারে কাটিয়ে ইসরায়েলে ফিরেছেন দেশটির গোয়েন্দা জনাথন পোলার্ড। বিবিসির প্রতিবেদনে এই তথ্য পাওয়া গেছে।

এই গুপ্তচরকে বিমানবন্দরে স্বাগত জানান ইসরায়েলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু। যুক্তরাষ্ট্রের তথ্য গোপনে ইসরায়েলের হাতে তুলে দেওয়ার অপরাধে তার কারাদণ্ড হয়েছিলো। গুপ্তচরবৃত্তি করতে যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনীতে চাকরি নিয়েছিলেন তিনি।

জনাথন পোলার্ড ও তার স্ত্রী এস্থার একটি ব্যক্তিগত উড়োজাহাজে করে বুধবার ইসরায়েলে ফেরেন। ওই উড়োজাহাজটি শেলডন অ্যাডেলসন নামের এক কোটিপতি ক্যাসিনো ব্যবসায়ীর। তিনি ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর সমর্থক বলে পরিচিত।

পোলার্ড ও তার স্ত্রীকে স্বাগত জানাতে তেল আবিব বিমানবন্দরে উপস্থিত ছিলেন নেতানিয়াহু। তিনি তাদের একটি ইসরায়েলের পরিচয়পত্র তুলে দেন।

পোলার্ড বলেন, ৩৫ বছর পরে আমরা বাড়িতে ফিরতে পেরে আনন্দিত। আমরা ইসরায়েলের নাগরিক। আমাদের এ দেশে আনার জন্য প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানাই।

নেতানিয়াহু বলেন, পোলার্ড এখন স্বাধীন ও খুশিমতো নতুন জীবন শুরু করতে পারবেন।

মার্কিন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার (সিআইএ) তথ্য বলছে, পোলার্ড মার্কিন নৌবাহিনীতে অ্যানালিস্ট হিসেবে যোগ দিয়েছিলেন। ইসরায়েলের পক্ষে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে ১৯৮৫ সালে তাকে আটক করা হয়।

পোলার্ড ইসরায়েলের গোয়েন্দা সংস্থার উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাদের সঙ্গে প্রায় দেড় বছর ধরে সম্পর্ক রেখেছিলেন। তিনি তাদের বিভিন্ন গোপন তথ্য সরবরাহ করতেন। একপর্যায়ে তার কার্যক্রম নিয়ে মার্কিন নৌবাহিনীর গোয়েন্দাদের সন্দেহ তৈরি হয়। ওই সময় পোলার্ড তার আওতার বাইরে থাকা প্রচুর গোপন তথ্য ব্যবস্থাপনার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। তাকে ভবনের বাইরে গোপন তথ্য নিয়ে যেতেও দেখা যায়।

ওই ঘটনার তিন দিন পরেই পোলার্ড ও তার তখনকার স্ত্রী অ্যানি হেন্ডারসনকে ওয়াশিংটনে ইসরায়েলের দূতাবাসের বাইরে আটক করা হয়। দূতাবাস তাদের আশ্রয়ের অনুরোধ প্রত্যাখ্যান করে। দুই বছর পরে তার যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হয়। ২০১৫ সালে প্যারোলে মুক্তি পেলেও তাকে ইসরায়েলে ফেরার অনুমতি দেওয়া হয়নি। শেষমেশ গত মাসে মার্কিন কর্তৃপক্ষ তাকে ইসরায়েলে ফেরার অনুমতি দেয়।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ