SylhetNewsWorld | তালেবান নেতাদের সঙ্গে এবার আলোচনা শুরু ভারতের - SylhetNewsWorld
সর্বশেষ
 নতুন বছর কে স্বাগত জানাতে বর্ণিল সাজে স্পেন গ্রেটার সিলেট এসোসিয়েশন ইন স্পেনের নির্বাচন কমিশন গঠন স্পেনের মন্ত্রীর সাথে বাংলাদেশের রেলমন্ত্রীর দ্বিপক্ষীয় বৈঠক অনুষ্ঠিত মাদ্রিদে গাজীপুর এসোসিয়েশনের নতুন কমিটি গঠন গ্রিসে রন্ধন শিল্পের প্রশিক্ষণার্থীদের মাঝে সনদ বিতরণ করলেন প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী গ্রিসে বাংলাদেশিদের জন্য শ্রমবাজার উন্মুক্ত ও বাংলা স্কুল প্রতিষ্ঠা সিলেট সদর উপজেলা ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন ফ্রান্সের কমিটি সিলেট চেম্বারের নির্বাচন শতভাগ নিরপেক্ষ করতে আমরা বদ্ধপরিকর: জলিল প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রীকে গ্রীস আওয়ামী লীগের সংবর্ধনা পাঁচদিনের সফরে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী গ্রিসে

তালেবান নেতাদের সঙ্গে এবার আলোচনা শুরু ভারতের

  |  ১২:৪৮, জুন ০৯, ২০২১

দীর্ঘদিনের অবস্থান থেকে সরে এলো ভারত। এই প্রথম আফগানিস্তানের তালেবানের কোনো গোষ্ঠী এবং নেতাদের সঙ্গে আলোচনা শুরু করল নয়াদিল্লি।

এ উদ্যোগ আফগানিস্তানের ক্ষেত্রে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ হতে চলেছে বলে মনে করছে সংশিষ্ট মহল। খবর হিন্দুস্তান টাইমসের।

গত বছর ফেব্রুয়ারিতে তালেবানের সঙ্গে চুক্তি স্বাক্ষরের পর থেকেই ক্রমশ আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার করে নিচ্ছে আমেরিকা।

তৎকালীন মার্কিন পররাষ্ট্র সচিব মাইক পম্পের উপস্থিতিতে সেই চুক্তিতে স্বাক্ষর করা তালেবান নেতা মুল্লাহ বরাদরের সঙ্গেই আলোচনা শুরু করেছে নয়াদিল্লি।

নাম গোপন রাখার শর্তে এক কর্মকর্তা জানান, ভারতীয় নিরাপত্তা কর্মকর্তারাই সেই আলোচনা চালাচ্ছেন। তবে তারা স্পষ্টভাবে বুঝিয়ে দিয়েছেন, পাকিস্তান ও ইরানের মদদপুষ্ট তালেবান নেতাদের সঙ্গে কথা বলা হচ্ছে না।

পাকিস্তানের জঙ্গি সংগঠনগুলোর মদদপুষ্ট হক্কানি বা কোয়েটা সুরার সঙ্গেও কোনোরকম আলোচনায় যেতে নারাজ ভারত। তালেবানের যে গোষ্ঠীগুলো ‘জাতীয়তাবাদী’ হিসেবে পরিচিত, সেগুলোর জন্যই আলোচনার দরজা খুলে দেওয়া হয়েছে।

অথচ এতদিন কোনোভাবেই তালেবানের সঙ্গে আলোচনার টেবিলে বসতে চায়নি ভারত।

ভারত স্পষ্ট করে বলেছে, প্রেসিডেন্ট আসরাফ গণি, সাবেক প্রেসিডেন্ট হামিদ কারজাইসহ আফগানিস্তানের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে আলোচনার পাশাপাশি সমান্তরালভাবে তালেবানদের সঙ্গে কথাবার্তা চালিয়ে যাবে নয়াদিল্লি।

কিন্তু কেন আচমকা দীর্ঘদিনের অবস্থান থেকে সরে এলো ভারত? গেটওয়ে হাউসের আন্তর্জাতিক নিরাপত্তাবিষয়ক ফেলো সমীর পাটিলের মতে— মার্কিন সেনা প্রত্যাহারের পর আফগানিস্তানের পরিস্থিতি কেমন হবে, তা নিয়ে অনিশ্চয়তা আছে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ