SylhetNewsWorld | পুতিন বিশ্ব নিরাপত্তার জন্য হুমকি: ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী - SylhetNewsWorld
সর্বশেষ
 আত্মসমর্পণ করে আজ জামিন চাইবেন সম্রাট ইউক্রেনকে রাশিয়ার কাছে ভূখণ্ড ছাড়ার পরামর্শ কিসিঞ্জারের স্থান-কাল বুঝে উন্নয়ন পরিকল্পনার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর ঘরে বসে পাওয়া যাবে ভুমি সেবা: বিভাগীয় কমিশনার তারা ক্ষমতায় থেকেও ভালো নেই, ঘুম হয় না: মোশাররফ গণকমিশনের নামে কেউ বিশৃঙ্খলা করলে ব্যবস্থা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ইউক্রেনের জন্য ৪০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার সহায়তা অনুমোদন যুক্তরাষ্ট্রের গাফ্ফার চৌধুরীর মৃত্যুতে সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাবের শোক অর্থনীতি নিয়ে জরুরি বৈঠকের নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর পাল্টা ব্যবস্থা, ফ্রান্স-ইতালি-স্পেনের ৮৫ কূটনীতিক বহিষ্কার করল রাশিয়া

পুতিন বিশ্ব নিরাপত্তার জন্য হুমকি: ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী

  |  ১২:৪১, মার্চ ১৭, ২০২২

রাশিয়ার তেল ও গ্যাসের বিকল্প খোঁজা যুক্তরাজ্যের জন্য খুবই সঠিক পদক্ষেপ বলে মনে করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী লিজ ট্রাস। উপসাগরীয় দেশগুলোতে প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসনের সফরের পক্ষে অবস্থান নিয়ে বিবিসি ব্রেকফার্স্ট অনুষ্ঠানে যোগ দেন ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী। এসময় রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের কঠোর সমালোচনা করেন তিনি।

লিজ ট্রাস বলেন, ভ্লাদিমির পুতিন ‘ইউরোপীয় নিরাপত্তা ছিন্নভিন্ন’ করে ফেলেছেন এবং ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসনের সময় ‘ভয়াবহ অস্ত্র এবং ভয়াবহ শক্তি’ ব্যবহার করেছেন। ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘তেল ও গ্যাস বিক্রির অর্থ দিয়ে পুতিন তার যুদ্ধাস্ত্রের তহবিল যোগাচ্ছেন এবং আমি বলছি না যে, সৌদি আরব এবং সংযুক্ত আরব আমিরাতের সব নীতির সঙ্গে আমরা একমত কিন্তু তারা বিশ্ব নিরাপত্তার ওপর সেইরকম হুমকি তৈরি করেনি, যেভাবে ভ্লাদিমির পুতিন করেছেন।’

ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, প্রভাব বিস্তারের জন্য আমাদের অন্য দেশগুলোকে যুক্তরাজ্যের ঘরানায় নিয়ে আসার প্রয়োজন এবং রাশিয়ার কাছ থেকে তাদের দূরে রাখা প্রয়োজন। জাতিসংঘে রাশিয়ার বিরুদ্ধে ১৪১টি দেশ ভোট দিয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমাদের এসব দেশগুলোকে সঙ্গে রাখা এবং তাদের সঙ্গে কাজ চালিয়ে যাওয়া প্রয়োজন।’

লিজ ট্রাস আরও বলেন ‘যেকোনও মূল্যে’ পুতিনকে থামাতে হবে আর বিশ্ব সত্যিকার যে হুমকির মুখোমুখি হয়েছে সেটি হচ্ছেন তিনি (পুতিন)।

ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের পরিস্থিতি সম্পর্কে জানতে চাইলে লিজ ট্রাস বলেন, ‘খুব, খুব কঠিন’। শহরটির নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রির যোগান অব্যাহত রাখতে এবং রাজধানী রক্ষায় ইউক্রেনীয় কর্তৃপক্ষকে সহায়তার জন্য যা কিছু প্রয়োজন তার জন্য কাজ করছে যুক্তরাজ্য।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ