SylhetNewsWorld | কুলি নাইটগার্ড থেকে মেয়র সাইদুর রহমান - SylhetNewsWorld
সর্বশেষ
 সিলেট চেম্বারের নির্বাচন শতভাগ নিরপেক্ষ করতে আমরা বদ্ধপরিকর: জলিল প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রীকে গ্রীস আওয়ামী লীগের সংবর্ধনা পাঁচদিনের সফরে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী গ্রিসে পাঁচদিনের সফরে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী গ্রিসে স্পেনে বাংলাদেশী শিশুরা স্পানিশ ক্লাবে ক্রীড়া নৈপূণ্য প্রদর্শন করছে বেগম জিয়ার রোগমুক্তির কামনায় কোকো স্মৃতি সংসদ ইউরোপের দোয়া এনআরবি ব্যাংকের ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ জামিল ইকবাল দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ করদাতা নির্বাচিত স্পেনে স্থানীয় সাংবাদিকদের সাথে নির্বাচন কমিশনের মতবিনিময় সভা মাদ্রিদে গাজীপুর এসোসিয়েশনের নতুন কমিটি গঠন স্পেনে নির্বাচন কমিশনার খোরশেদ আলম মজুমদার, সদস্য সচিব মোঃ দুলাল সাফা

কুলি নাইটগার্ড থেকে মেয়র সাইদুর রহমান

  |  ০৫:৪৯, ফেব্রুয়ারি ০১, ২০২১

রাজশাহীর তানোর উপজেলার মুণ্ডুমালায় কুলি ও নাইটগার্ড থেকে মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন সাইদুর রহমান। পেশায় তিনি প্রথমে ছিলেন টোকাই, এরপর মুণ্ডুমালা বাজারের কুলি। পরে মাদক ব্যবসায় জড়িত হলে বেশ কয়েক বছর জেলও খাটেন তিনি।

এ অবস্থায় ২০০৯ সালে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এলে বর্তমান উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও মেয়র গোলাম রাব্বানীর ছায়ার তলে ঢুকে পড়েন সাইদুর রহমান। এ সুযোগে মুণ্ডুমালা পৌরসভায় তার স্ত্রীর নামে ঠিকাদারি লাইন্সেস বের করে নেন।

ওই লাইন্সেস দেখিয়ে পৌরসভার রাস্তাঘাট ও ড্রেন নির্মাণসহ বিভিন্ন টেন্ডার কাজ শুরু করেন তিনি। বর্তমানে তার স্ত্রী তানোরের সর্বোচ্চ করদাতা। এভাবে বেড়ে উঠার সঙ্গে গাড়ি-বাড়ি ছাড়াও কোটি টাকার মালিক হয়েছেন সাইদুর।

সম্প্রতি করোনাকালে লকডাউনে সাইদুর রহমান সুযোগ বোঝে চাল-ডালসহ বিভিন্ন খাদ্যপণ্য ঘরবন্দি মানুষের বাড়িতে পৌঁছে দেন। এখান থেকেই তার শুরু হয় জনপ্রিয়তা। এ অবস্থায় উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মেয়র গোলাম রাব্বানী এমপি প্রার্থীর প্রচারণায় নামেন। পরে সাইদুরের জনপ্রিয়তায় তাকে মেয়রপ্রার্থী ঘোষণা দেন রাব্বানী।

সাইদুর বর্তমানে মুণ্ডুমালা মহিলা কলেজের নৈশপ্রহরী। কলেজ থেকে নির্বাচন করার জন্য ছুটি নিয়েছিলেন ১৫ দিন। পৌর আওয়ামী লীগে ছিলেন সাংগঠনিক সম্পাদক পদে। দল নিষেধ সত্ত্বেও নির্বাচনে অটল ছিলেন তিনি। এজন্য দল থেকে বহিষ্কারও হতে হয়েছে তাকে। তারপরও অদম্য ইচ্ছাশক্তির জেরে তৃতীয় ধাপে অনুষ্ঠিত পৌর নির্বাচনে মুণ্ডুমালা পৌরসভায় মেয়র নির্বাচিত হয়েছেন সাইদুর রহমান।

আওয়ামী লীগ থেকে মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আমির হোসেন আমিনকে ৬১ ভোটে হারিয়ে হয়েছেন পৌরসভার নির্বাচিত মেয়র সাইদুর রহমান। তিনি মোট ৫ হাজার ৪৫৯ ভোট পেয়েছেন। পেশায় নৈশপ্রহরী হলেও আওয়ামী লীগে সক্রিয় ছিলেন সাইদুর। মেয়র পদে নির্বাচনের জন্য আওয়ামী লীগের দলীয় মনোনয়ন চেয়েছিলেন। মনোনয়ন না পেয়ে দল থেকে পদত্যাগের ঘোষণা দেন। নির্বাচনে থাকায় পৌর আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে তাকে বহিষ্কারের কথাও জানানো হয়।

নির্বাচনে সাইদুর রহমান জগ প্রতীকে পাঁচ হাজার ৪৫৯ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আমির হোসেন আমিন পেয়েছেন পাঁচ হাজার ৩৯৮ ভোট। বিএনপির প্রার্থী ফিরোজ কবির ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন তিন হাজার ৩৮১ ভোট।

গত শনিবার রাতে রিটার্নিং অফিসার ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার সুশান্ত কুমার মাহাতো মুণ্ডুমালা পৌর নির্বাচনের এ ফলাফল ঘোষণা করেন।

মেয়র সাইদুর রহমান বলেন, আমার ইচ্ছা ছিল দল থেকে মনোনয়ন নিয়ে নির্বাচন করা কিন্তু না পেলেও মেয়র নির্বাচিত হয়েছি। এখন মানুষের সেবা করে যাব।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ