SylhetNewsWorld | নাটোরে হাসপাতালে চুরি যাওয়া শিশু ৮দিন পর উদ্ধার - SylhetNewsWorld
সর্বশেষ
 মাদ্রিদে আল আমান মসজিদে’র কুরআন শিক্ষার ফলাফল ও পুরস্কার বিতরণ স্পেনে সংবর্ধিত হলেন ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি সিরাজুল ইসলাম তসলু নকশী বাংলা ফাউন্ডেশন সম্পাদকের পিতৃবিয়োগ বিভিন্ন মহলের শোক স্পেনে বায়তুল মুকাররম মসজিদের খাদিম আব্দুস শুক্কুর অসুস্থঃদোয়া কামনা দারুল কিরাত মজিদিয়া ফুলতলি ট্রাস্ট মাদ্রিদ শাখার পুরস্কার বিতরণী সম্পন্ন স্পেনে অনুষ্ঠিত হলো বৃহত্তর নোয়াখালী সমিতি’র অভিষেক বাজেট অনুষ্ঠানে মেয়র আরিফের ঘোষণায় বিব্রত সাংবাদিকরা স্পেন থেকে আফগানিস্তান থেকে উদ্ধারকৃত ছয়জন বাংলাদেশীকে দেশে প্রত্যাবর্তন বাংলাদেশ দূতাবাস এথেন্স-এ ইলেক্ট্রনিক পাসপোর্ট সেবার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন স্বাধীনতার সূবর্ন জয়ন্তিতে স্পেনে ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনাল সম্পন্ন

নাটোরে হাসপাতালে চুরি যাওয়া শিশু ৮দিন পর উদ্ধার

  |  ০৫:০৪, ডিসেম্বর ৩১, ২০২০

নাটোরের গুরুদাসপুর উপজেলার স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে চুরি হওয়ার দুই মাসের শিশু তাইবারকে আট দিন পর উদ্ধার করা হয়েছে।

বুধবার রাতে উপজেলার কচুগাড়ি গ্রাম থেকে ওই শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়। এর পর ঘটনাস্থলে গিয়ে মা শিশুটিকে নিজের বলে শনাক্ত করেন।

এদিকে এ ঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গুরুদাসপুর থানার ওসি মো. আবদুর রাজ্জাক এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে বুধবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে গুরুদাসপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে চিকিৎসা নিতে আসা এক নারীর দুই মাসের কন্যাসন্তান চুরির ঘটনা ঘটেছে।

চুরি যাওয়া শিশু তাইবার মা সীমা বেগমের বাড়ি উপজেলার মশিন্দা ইউনিয়নের মাঝপাড়া গ্রামে। তিনি তৌফিজ মোল্লার স্ত্রী।

গুরুদাসপুর থানার ওসি মো. আবদুর রাজ্জাক জানান, বুধবার রাতে উপজেলার কচুগাড়ি গ্রাম থেকে ওই শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়। এর পর ঘটনাস্থলে গিয়ে মা শিশুটিকে নিজের বলে শনাক্ত করেন। এ ঘটনায় একজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

শিশুটির মা সীমা বেগম জানান, ‘আমার তিন ছেলেমেয়ে। গত দুই মাস আগে আমার গর্ভে জন্মগ্রহণ করেছে তাইবা। তার বয়স বর্তমানে দুই মাস। ঠাণ্ডাজনিত রোগের চিকিৎসা নিতে তাইবাকে নিয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এসেছিলাম। চিকিৎসা নেয়ার পর হাসপাতালের বাহিরে দাঁড়ালে অজ্ঞাত এক নারী তার সন্তানকে দেখার জন্য তার কাছ থেকে নেয়। অজ্ঞাত নারীর কাছে সন্তান রেখে আউটডোরে যান। ৩-৪ মিনিট পর ফিরে এসে দেখেন তার শিশুসহ ওই নারী নেই। কিছুক্ষণ হাসপাতালের চারপাশ এবং মেইন সড়কগুলো খোঁজাখুঁজি করেও তার সন্তানসহ ওই নারীকে খুঁজে পাওয়া যায়নি।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ