SylhetNewsWorld | ক্ষুব্ধ হয়ে স্বামীর বিশেষ অঙ্গ কেটে দিলেন দ্বিতীয় স্ত্রী - SylhetNewsWorld
সর্বশেষ

ক্ষুব্ধ হয়ে স্বামীর বিশেষ অঙ্গ কেটে দিলেন দ্বিতীয় স্ত্রী

  |  ০৪:৫০, ডিসেম্বর ৩১, ২০২০

নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলায় দ্বিতীয় বিয়ের পরও অন্য নারীদের সঙ্গে সখ্যতা থাকায় ক্ষুব্ধ হয়ে স্বামীর বিশেষ অঙ্গ কেটে দিয়েছেন দ্বিতীয় স্ত্রী।

মঙ্গলবার রাতে উপজেলার ধামগড় ইউনিয়নের মালামত গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মুমূর্ষু অবস্থায় স্বামী ইব্রাহীমকে (৫৫) ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

স্থানীয়রা জানান, বন্দরের মালামত এলাকার মৃত ওমর আলী বেপারির ছেলে ইব্রাহীম (৫৫) প্রথম স্ত্রী হাসিনা বেগমকে রেখে ৪ সন্তানের জননী শাহীনুর বেগমকে ৭ বছর আগে বিয়ে করেন। তাদের সংসারে আফরীন (৬) নামে একটি কন্যাসন্তান রয়েছে।

দ্বিতীয় বিয়ের পরও ইব্রাহীমের সঙ্গে বিভিন্ন নারীদের সখ্যতা ছিল। এ নিয়ে তার দ্বিতীয় স্ত্রীর সঙ্গে প্রায়ই ঝগড়া হতো। মঙ্গলবার রাতে তাদের মধ্যে আবারও ঝগড়া হয়। গভীর রাতে স্ত্রী শাহীনুর ঘুমন্ত স্বামীর বিশেষ অঙ্গ কেটে বিচ্ছিন্ন করে পালিয়ে যান।

ইব্রাহীমের প্রথম স্ত্রীর সন্তান আইরীন জানান, তার সৎমা শাহীনুর বন্দরের হালুয়াপাড়া এলাকার মৃত হযরত আলীর মেয়ে। তিনি ছিলেন তার মামিশাশুড়ি। তার বাবা মামাশ্বশুর আলী হোসেনকে বিভিন্নভাবে মামলা দিয়ে হয়রানি করে নিঃস্ব করার পর মামিশাশুড়ি শাহীনূরকে বিয়ে করেন।

আইরীন আরও জানান, বাবা তার মাকে রেখে দ্বিতীয় বিয়ে করার পর আর তাদের বাড়িতে থাকেন না। তিনি সৎমাকে নিয়ে অন্য বাড়িতে বসবাস করেন। তিনি বলেন, বাবার আহত হওয়ার খবর শুনে রাত ৩টায় ঘটনাস্থলে গিয়ে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাই।

এ ব্যাপারে বন্দর থানার ওসি ফখরুদ্দীন ভূঁইয়া জানান, ঘটনার খবর পেয়েছি। তবে কেউ থানায় অভিযোগ করেননি। ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠিয়েছি।

এ ব্যাপারে ধামগড় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মাসুম আহাম্মেদ বলেন, ইব্রাহীমকে নিয়ে কয়েক দফা বিচার সালিশ হয়েছে। তবে তার বিশেষ অঙ্গ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে কিনা তা আমার জানা নেই।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ