সর্বশেষ
 অস্তিত্ব সংকটে সর্ব ইউরোপীয়ান আওয়ামী লীগ অনিয়মের অভিযোগ এসআই হাসান ও এক সাংবাদিক মিলে সিসি ক্যামেরার ফুটেজ পাল্টায় এসআই আকবর গ্রেফতার! প্রবাসের রাজনীতিতে আওয়ামী লীগের দলীয় কোন্দলের কারণে দুর্বল হচ্ছে সংগঠন মোঃ মশিয়ার রহমান  এস.আই আকবরকে ধরিয়ে দিতে ১০ লক্ষ টাকা পুরস্কার ঘোষণা! জগন্নাথপুরে হত্যার মামলার ওয়ারেন্টের আসামী গ্রেফতার প্রবীণ সাংবাদিক আজিজ আহমদ সেলিমের মৃত্যুতে অনলাইন প্রেসক্লাবের শোক রায়হান হত্যা: ৭২ ঘণ্টার মধ্যে এসআই আকবরকে গ্রেফতারের দাবি রায়হান হত্যার প্রতিবাদে বৃহত্তর পশ্চিম সদরবাসীর মানববন্ধন কুলাউড়ায় ‘জুবেদ চৌধুরী ক্রীড়া ও ফুটবল একাডেমী’র আত্মপ্রকাশ

টেকনাফে ইলিশ মাছ ধরার ওপর নিষেধাজ্ঞা

  |  ১৪:০৯, অক্টোবর ১৩, ২০২০

 

আজিজ উল্লাহ, টেকনাফ:

ইলিশের প্রজনন মৌসুমে মা ইলিশ রক্ষা করার জন্য বঙ্গোপসাগরসহ সারাদেশের নদ-নদীতে ইলিশ ধরার উপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে মৎস্য অধিদপ্তর।তা বাস্তবায়ন করতে টেকনাফের উপকূলীয় মৎস্য প্রাণিসম্পদ আহরণের অঞ্চল শামলাপুর মৎস্য ঘাটে
সচেতনামূলক সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

মঙ্গলবার (১৩ অক্টোবর) বিকাল ৩.০০ টার দিকে বাহারছড়া শামলাপুর মৎস্য ঘাটে ইলিশ না ধরার
জন্য উপজেলা মৎস্য অফিসার দেলোয়ার হোসাইনের
নেতৃত্বে জেলেদের সঙ্গে সচেতনতামূলক সভা হয়।

এসময় বক্তারা বলেন, সরকারের নিষিদ্ধ ঘোষিত ২২ দিন বন্ধের এসময়ে ইলিশ আহরণ,পরিবহন, মজুদ,বাজারজাতকরণ,ক্রয়-বিক্রয়সহ বিনিময় করা দণ্ডনীয় অপরাধ বলে হুঁশিয়ার করেন।একটা মা ইলিশ ২০-২২ লাখ অব্দি ডিম ছাড়ে তা থেকে একচতুর্থাংশ বেঁচে থাকলেও সাগরে ইলিশের সয়লাব হয়ে যাবে পরবর্তীতে এসব ইলিশ জেলেরাই আহরণ করবে তাই ইলিশের ডিম ধ্বংস না করে মৎস্য প্রাণিসম্পদ বাড়াতে সকল জেলেদের নিষিদ্ধ সময়ে মাছ শিকারে বিরত থাকার আহবান জানান। সভা শেষে জেলেদের মাঝে ইলিশ সচেতনমূলক লিফলেটও বিতরণ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, বুধবার ১৪ অক্টোবর মধ্য রাত থেকে ৪ নভেম্বর পর্যন্ত মোট ২২ দিন ইলিশ প্রজনন ক্ষেত্রে ইলিশ সহ সব ধরনের মৎস্য আহরণে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে মৎস্য অধিদপ্তর।

এদিকে ইলিশ না ধরার উপর সচেতনতা মূলক সভা শেষে মৎস্য ডিপার্ট্মেন্টের অধীনে ইকোফিশ প্রকল্পের মাধ্যমে শামলাপুর স্থানীয় প্রান্তিক জেলে বঁধুদের মাঝে নিরাপদ শুটকি উৎপাদনের জন্য ১০০ জনের মধ্যে ১০ কেজি করে কাঁচা পোয়াঁ মাছ বিতরণ করা হয়েছে।

বিষ ছাড়া বিশুদ্ধ শুকনো মাছের উৎপাদন বাড়াতে ধাপে ধাপে আরো বিতরণ করা হবে বলে জানান গবেষণা ইকোফিস প্রকল্পের গবেষণা কর্মকর্তা উত্তম কুমার।

এসময় উপস্থিত ছিলেন,উপজেলা মৎস্য অফিসার; দেলোয়ার হোসেন, উপসহকারী মৎস্যকর্মকর্তা শহিদুল আলম,বাহারছড়া বিসিজি আউটপোস্টের কন্টিনজেন কমান্ডার;আব্দু রহমান।ইকোফিশ সাইন্টিফিক অফিসার;উত্তম কুমার, ছড়া মৎস্য কমিটির সভাপতি জাহেদুল আলম,বাহারছড়া নৌকা ঘাটের সভাপতি বেলাল উদ্দিনসহ আরো অনেকে।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ