সর্বশেষ

মিয়ানমারের ৫ ডাকাত গ্রেফতার : জেলে উদ্ধার

  |  ১৪:৫২, অক্টোবর ১২, ২০২০

 

আজিজ উল্লাহ, টেকনাফ:

টেকনাফের নোয়াখালী পাড়া বাংলাদেশ কোস্টগার্ডের অভিযানে চালিয়ে ১২ নটিক্যাল মাইল দূরে সমুদ্র থেকে ৫ জন ডাকাতকে আটক করেছে।

কোস্টগার্ডের পাঠানো প্রেস বিজ্ঞপ্তি থেকে জানা যায়, ১২ অক্টোবর সোমবার রাত ৩ টার সময় কোস্টগার্ড স্টেশান টেকনাফ নিয়মিত টহলে থাকাকালীন টেকনাফ থানাধীন নোয়াখালীপাড়া হতে ১২ নটিক্যাল মাইল দূরে সমুদ্র থেকে ৫ জন অস্ত্রধারী ডাকাতকে আটক করে। এসময় তাদের নৌকা থেকে ৭ জন বাংলাদেশী জেলেকে বাঁধা অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। এছাড়াও ডাকাতদের নৌকাটি তল্লাশী করে ২টি দেশীয় একনলা বন্দুক, ৮ রাউন্ডস কার্তুজ, ১০ টি বিভিন্ন ধরনের বার্মিজ ধারালো অস্ত্র ও ১ টি ইঞ্জিন চালিত কাঠের নৌকা জব্দ করা হয়।

আটককৃত ডাকাতরা হলো– মোঃ বাকগুল্লা(২২) মোঃ শুকুর(২০), রবি আলম(২২), নুরুল আমিন(৩০) ও শফি আলম(২০)।এরা সকলেই মায়ানমারের আকিয়াব জেলার আড়িপাড়া অঞ্চলের বাসিন্দা। পরবর্তীতে উক্ত অভিযানে উদ্ধারকৃত বাংলাদেশী জেলেদের ডুবে যাওয়া একটি নৌকা উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধারকৃত জেলেরা সকলেই টেকনাফের নোয়াখালীপাড়ার বাসিন্দা।

লেফটেন্যান্ট কমান্ডার আমিরুল ইসলাম বলেন, মাদক পাচার রোধে প্রতিনিয়ত নাফ নদী ও বঙ্গোপসাগরের কোস্টগার্ডের টহল জোরদার করা হয়েছে।

আটককৃত ডাকাত, উদ্ধারকৃত জেলে এবং জব্দকৃত অস্ত্র ও অন্যান্য মালামাল পরবর্তী কার্যক্রমের জন্য টেকনাফ মডেল থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। বাংলাদেশ কোস্টগার্ড এর আওতাভুক্ত এলাকাসমূহে আইন শৃঙ্খলা নিয়ন্ত্রন, জননিরাপত্তার পাশাপাশি বনদস্যুতা, মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রন ও ডাকাতি দমন রোধে কোস্ট গার্ডের জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বন করে, নিয়মিত অভিযান অব্যাহত আছে এবং ভবিষ্যতেও থাকবে।

আটকের তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন বাংলাদেশ কোস্টগার্ড সদর দপ্তর মিডিয়া কর্মকর্তা লেফটেন্যান্ট কমান্ডার এম হায়াত ইবনে সিদ্দিক বিএন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ