গ্রীসে বিএনপির ৪৪তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

প্রকাশিত: ৪:৪০ পূর্বাহ্ণ, সেপ্টেম্বর ২০, ২০২২

গ্রীসে বিএনপির ৪৪তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত

জাকির হোসাইন চৌধুরী ,গ্রীস থেকে:

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল গ্রীস শাখার তৃনমুল থেকে শীর্ষ নেতৃবৃন্দের মনোনিত আহবায়ক কমিটি দ্বারা আয়োজিত ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্যে পালন করা হয় বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের ৪৪ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী। এথেন্সের ওমোনিয়া এলাকায় প্রথমে একটি র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে গ্রীসের রাজধানী এথেন্সের দলীয় কার্যালয় গ্রানিও-৪ এথেন্সের দলীয় কার্যালয়ে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে জাতীয়তাবাদী সকল নেতৃবৃন্দ ও কর্মীদের উপস্থিতি ছিল লক্ষণীয় । কার্যালয়ের হলে নেতা -কর্মীদের জায়গা সংকুলান হওয়াতে নিচে রাস্তায় অনেক ভিড় জমে গিয়েছিল এবং গেরানিও (বাঙালি গলি) থেকে দু’দিকে প্রধান দুটি সড়ক বন্ধ হয়ে গেলে যানজটের সৃস্টি হয় ,পরে পুলিশের হস্তক্ষেপে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আসে।

গ্রীস শাখা বিএনপির কেন্দ্র ঘোষিত আহবায়ক কমিটির মেয়াদ বিগত ৬/৯/২২ ইং তারিখে ৩ মাস পূর্ন হওয়ায় এবং গ্রীসের শীর্ষ নেতৃবৃন্দদের কেন্দ্র ঘোষিত আহবায়ক কমিটি তে গ্রীস শাখা বিএনপির সদ্য বিদায়ী কার্যনির্বাহী কমিটির কারসাজির কারনে অনেক নেতৃবৃন্দ বাদ পড়ায় গ্রীসের সর্বস্তরের নেতাকর্মী উক্ত আহবায়ক কমিটিকে প্রত্যাক্ষান করে নতুন আহবায়ক কমিটি গঠন করে। গ্রীস শাখা বিএনপির সকল অঞ্চলের প্রতিনিধিত্ব নিশ্চিত করে ত্যাগী নেতৃবৃন্দদের সমন্নয়ে আহবায়ক কমিটি গঠন করে আগামী অনাগত সম্মেলন কে সফল করার লক্ষ্যে অনুষ্ঠানে দূঢ় প্রতিজ্ঞ বদ্ধ হন জাতীয়তাবাদী নেতা -কর্মী ।

গ্রীস বিএনপির প্রধান আহবায়ক হাফেজ আহমেদের সভাতিত্বে গ্রীস বিএনপির প্রথম নির্বাচিত সাধারন সম্পাদক ওসমান গনি কামাল ও সদস্য সচিব মোতাব্বির মোহাম্মদ এর পরিচালনায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন গ্রীস বিএনপির প্রথম নির্বাচিত সভাপতি জনাব আনোয়ার হোসেন দেওয়ান ,বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বর্তমান আহবায়ক কমিটির যুগ্ম-আহবায়ক জনাব ইদ্রিস আলী আজিজ।
আরো উপস্থিত ছিলেন তিনবারের সাবেক সাধারন সম্পাদক আমিমুল হক সুফি , যুগ্ম-আহবায়ক হাজী মোক্তার হোসেন , যুগ্ম আহবায়ক ইকবাল হোসেন,
সাবেক সভাপতি মোহাম্মদ আলী লিটন, সাবেক সহসভাপতি নাসিরুল ইসলাম।
সাবেক সহ সভাপতি মোখলেসুর রহমান বাচ্চু। স্বেচ্চাসেবক দলের সংগ্রামী সভাপতি জনাব মইনুল ইসলাম জামান,সাবেক সহ-সভাপতি সামসুল আলম,
সাবেক সহ-সভাপতি জসিম উদ্দিন ,সাবেক সহসভাপতি মোল্লা মাসুদ ,সাবেক সহসভাপতি বর্তমান যুগ্ম আহবায়ক ,জনাব আবদুল মান্নান,জনাব আবুল হোসেন খান,জনাব আবদুর রশিদ,জনাব তোফায়েল আহমেদ ,জনাব মোহাম্মদ সেলিম,জনাব লিটন ফকির,জনাব মৃধা নুরুল ইসলাম ,সাবেক যুগ্ম সাধারন,সম্পাদক বর্তমান যুগ্ম আহবায়ক,জনাব সাইদুর দেওয়ান ,জনাব পেয়ার আলী ,জনাব আলী আবদুল হক,জনাব সাব্বির বেপারী,জনাব গোলাম মাহমুদ সুমন ,জনাব আল আমিন সবুজ,আজিজ হালিদ আজিজুল গ্রীস বিএনপির অন্যতম নিতীনির্ধারক বর্তমান আহবায়ক সদস্য জনাব বাদশা মিয়া ওরফে আলী ভাই,জনাব মোঃ রাশেদ মিয়া ,জনাব মাসুদ পাটোওয়ারী,জনাব আল আমিন সম্রাট,জনাব জীবন আলী কাজল ,জনাব মোহাম্মদ হোসেন,জনাব নজরুল ইসলাম,জনাব নেয়ামত উল্যা ,জনাব নান্নু মিয়া ,জনাব আবুল হোসেন,জনাব ফারক আখাঞ্জী ,জনাব মাহিম উদ্দিন ,জনাব আবুল কাশেম,জনাব তপন মৃধা
জনাব মোহাম্মদ সোহেল,জনাব খোরশেদ আলম ,জনাব কামাল হোসেন।জনাব মাঈন উদ্দিন ,জনাব মোঃআলিম,জনাব সোহেল মোহাম্মদ সহ গ্রীস বিএনপির অনেক নেতা কর্মী ও সমর্থকেরা।
বক্তারা দেশের অবৈধ সরকারের অগণতান্ত্রিক কর্মকান্ড বিরোধী দলের নেতা কর্মীদের উপর বিভিন্ন ধরনের দমন নিপীড়িন নির্যাতন এবং সর্বশেষ ভোলা এবং নারায়নগঞ্জে পুলিশ কর্তৃক গুলি করে যুবদল ও স্বেচ্ছাসেবক দলের কর্মীদের নির্মম হত্যা এবং বিএনপির শীর্ষ নেতা বরকত উল্যা বুলু, তাবিথ আউয়াল, আলাল সহ শতাধিক নিরীহ নেতা কর্মীদের আহত করার তীব্র প্রতিবাদ জানায়।

পরিশেষে শহীদ রাষ্ট্র পতি জিয়াউর রহমান ও আরাফাত রহমান কোকোর বিদেহী আত্মার মাগফেরাত কামনা এবং সাবেক তিন বারের প্রধান মন্ত্রী বেগম খালেদা জিয়ার রোগমুক্তি ও দলের ভাইসচেয়ারম্যান জননেতা তারেক রহমান ও তাদের পরিবারের মঙ্গল কামনায় দোয়া ও মোনাজাত করেন মাওলানা বজলুল হক
ও হাফেজ জামিল আহমেদ।