সর্বশেষ

একাত্তরের পরাজিত অপশক্তির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর দৃঢ় প্রত্যয় নিয়ে স্পেন আওয়ামী লীগ এর মহান বিজয় দিবস

  |  ১৭:২১, ডিসেম্বর ২৩, ২০২০

একাত্তরের পরাজিত অপশক্তির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর দৃঢ় প্রত্যয় নিয়ে স্পেন আওয়ামী লীগের আয়োজনে অনুষ্ঠিত হয়েছে ৪৯ তম মহান বিজয় দিবস।

মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে স্পেন আওয়ামী লীগের আয়োজনে এক আলোচনা সভা গত ২২ ডিসেম্বর মাদ্রিদের লাভাপিয়েছ কেন্দ্রিক বিরিয়ানি হাউজে অনুষ্ঠিত হয়। স্পেন আওয়ামী লীগের সাবেক ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মোহাম্মদ দুলাল সাফার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন স্পেন আওয়ামী লীগের সাবেক প্রধান উপদেষ্টা একেএম জহিরুল ইসলাম। স্পেন আওয়ামী লীগের সাবেক যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক দবির তালুকদার ও জসিম উদ্দিনের যৌথ সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আব্দুল কাদের ঢালি, আইয়ুব আলী সোহাগ, ফয়জুর রহমান,রফিক খান,জালাল আহমেদ, সাইফুল ইসলাম সোহাগসহ আরও অনেকে। বক্তারা বলেন জাতির পতাকা আজও খামচে ধরছে সেই পুরনো শকুন,যে শকুনেরা একাত্তরের মহান মুক্তিযুদ্ধে ত্রিশ লক্ষ বীর বাঙালিকে নির্মম নিষ্ঠুরভাবে হত্যা করেছে, দু’লক্ষ মা-বোনের সম্ভ্রম হানি করেছে সে সকল পরাজিত অপশক্তি আজও সোচ্চার। বক্তারা বলেন বঙ্গবন্ধু মানেই বাংলাদেশ,লাল সবুজের পাতাকা,কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য, সে পরাজিত অপশক্তির দোসররা সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণের বিরোধিতা ও আস্ফালন দেখাচ্ছে। বক্তারা এ ব্যাপারে মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের সকল শক্তিকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে তাদের প্রতিরোধ ও দাঁত ভাঙ্গা জবাব দেয়ার আহবান জানান,পাশাপাশি বর্তমান সরকার ও প্রশাসনকে এ বিষয়ে আরও কঠোর অবস্থান নেয়ার জোর দাবি জানান। সভাপতির বক্তব্যে মোহাম্মদ দুলাল সাফা অনুষ্ঠানে উপস্থিত সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন,স্পেন আওয়ামী লীগ এক এবং অভিন্ন। স্পেন আওয়ামী লীগের তৃনমুল পর্যায়ের নেতা কর্মীদের মধ্যে কোনো বিভক্তি নেই,তারা সবসময়ই ঐক্যবদ্ধ। তিনি আগামী ১০ জানুয়ারি জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে সবাইকে আগাম আমন্ত্রণ জানিয়ে তৃণমূল নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে বলেন, বিগত দিনে স্পেন আওয়ামী লীগকে ঐক্যবদ্ধ করায় আপনারা আমাকে যেভাবে সহযোগিতা করেছেন,সে ধারা অব্যাহত রাখলে আগামী ১০ জানুয়ারি নতুনত্ব কিছু ঘোষণা দেয়ার প্রত্যাশা ব্যাক্ত করেন তিনি। বর্তমানে দেশের উন্নয়ন অগ্রযাত্রাকে ধরে রাখায় দেশে এবং প্রবাসে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করার উদাত্ত আহ্বান জানান। করোনা মহামারীতে স্বাস্থ্য বিধি যথাযথ মেনে চলার কারণে ব্যাপক পরিসরে মহান বিজয় দিবসের অনুষ্ঠান আয়োজন না করতে পারায় দুঃখ প্রকাশ করে আগামীতে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে জাতীয় দিবসগুলো ব্যাপক পরিসরে এবং সবাইকে নিয়ে করার প্রত্যাশা ব্যাক্ত করেন তিনি।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ