SylhetNewsWorld | রেলক্রসিং খোলা রেখে গেটম্যান ঘুমিয়ে ছিলেন: এসপি - SylhetNewsWorld
সর্বশেষ
 প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রীকে গ্রীস আওয়ামী লীগের সংবর্ধনা পাঁচদিনের সফরে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী গ্রিসে পাঁচদিনের সফরে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রী গ্রিসে স্পেনে বাংলাদেশী শিশুরা স্পানিশ ক্লাবে ক্রীড়া নৈপূণ্য প্রদর্শন করছে বেগম জিয়ার রোগমুক্তির কামনায় কোকো স্মৃতি সংসদ ইউরোপের দোয়া এনআরবি ব্যাংকের ভাইস চেয়ারম্যান মোঃ জামিল ইকবাল দেশের দ্বিতীয় সর্বোচ্চ করদাতা নির্বাচিত স্পেনে স্থানীয় সাংবাদিকদের সাথে নির্বাচন কমিশনের মতবিনিময় সভা মাদ্রিদে গাজীপুর এসোসিয়েশনের নতুন কমিটি গঠন স্পেনে নির্বাচন কমিশনার খোরশেদ আলম মজুমদার, সদস্য সচিব মোঃ দুলাল সাফা বাংলাদেশ এসোসিয়েশন ইন স্পেনের নির্বাচন কমিশন গঠন

রেলক্রসিং খোলা রেখে গেটম্যান ঘুমিয়ে ছিলেন: এসপি

  |  ০৮:৩৬, ডিসেম্বর ১৯, ২০২০

জয়পুরহাট সদরের পুরানাপৈলে বাস ও ট্রেনের সংঘর্ষের সময় রেলক্রসিংয়ের গেট খোলা ছিল। আর গেটম্যানও ঘুমিয়ে ছিলেন।

জেলা পুলিশ সুপার (এসপি) মো. সালাম কবির এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

শনিবার সকাল ৭টার দিকে জয়পুরহাট সদরের পুরানাপৈল রেলক্রসিংয়ে বাসের ট্রেনের ধাক্কায় ১২ জন নিহত ও ৩ জন আহত হয়েছেন।

দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যান জয়পুরহাটের জেলা প্রশাসক মো. শরীফুল ইসলাম ও ‍পুলিশ সুপার সালাম কবির।

এসময় সালাম কবির সাংবাদিকদের বলেন, রেলক্রসিং খোলা ছিল। গেটম্যান ঘুমিয়ে ছিলেন। রেলক্রসিং খোলা দেখে বাসচালক রেললাইন পার হওয়ার চেষ্টা করলে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান ও আওয়ামী লীগ নেতা খোরশেদ আলম সৈকত বলেন, গেটম্যানের ভুলের কারণেই এতগুলো প্রাণ ঝড়ে গেল। রেলক্রসিং বন্ধ থাকলে এ দুর্ঘটনা ঘটতো না।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্র জানায়, পার্বতীপুর থেকে রাজশাহীগামী ৩২ নম্বর উত্তরা এক্সপ্রেস ট্রেনের সঙ্গে বাঁধন পরিবহনের যাত্রীবাহী একটি বাসের সংঘর্ষ হয়। বাসটি জয়পুরহাট থেকে পাঁচবিবি যাচ্ছিল।

পথে বাসটি পুরানাপৈল রেলক্রসিং পার হওয়ার সময় ট্রেনটিও সেখানে চলে আসে। এতে হতাহত হওয়ার এ ঘটনা ঘটে। নিহত ১২ জন বাসের যাত্রী ছিলেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ