SylhetNewsWorld | দেশে করোনায় আরও ২৪১ জনের মৃ'ত্যু - SylhetNewsWorld
সর্বশেষ
 সিলেটে লিভার সংক্রান্ত সচেতনামূলক সভা অনুষ্ঠিত অশ্রুঝরা মুনাজাতে লাখো মানুষের ‘আমিন’ ধ্বনি : সমাপ্ত হলো ঐতিহাসিক ইজতেমা সিলেটে কর্মরত সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় করলেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এডভোকট নাসির উদ্দিন খান সামাদ আজাদ ও ড. হারিছ আলী স্মৃতি বৃত্তি-২০২২ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত স্পেনে বৃহত্তর কুমিল্লা সমিতির অভিষেক অনুস্টিত মাদ্রিদে শাহজালাল লতিফিয়া মসজিদে শানে রিসালাত সম্মেলন মাদ্রিদে আঞ্জুমানে আল ইসলাহ’র কাউন্সিল সম্পন্ন ফ্রান্স জাসাসের উৎসবমুখর কর্মীসভা অনুষ্ঠিত আনজুমানে আল ইসলাহ ফ্রান্সের সাধারণ সভা ও কাউন্সিল অনুষ্ঠিত সিলেটের সাংস্কৃতিক অঙ্গনের প্রিয়মুখ মিশফাক আহমদ মিশু’র মৃত্যুতে সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাবের শোক

দেশে করোনায় আরও ২৪১ জনের মৃ’ত্যু

  |  ১৪:৪৩, আগস্ট ০৪, ২০২১

দেশে করোনায় আরও ২৪১ জনের মৃ'ত্যু
দেশে করোনায় আরও ২৪১ জনের মৃ'ত্যু

করোনাভাইরাসে দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ২৪১ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে দেশে করোনায় মোট মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ২১ হাজার ৬৩৮ জনে। একই সময়ে দেশে করোনায় নতুন শনাক্ত হয়েছেন ১৩ হাজার ৮১৭ জন। ফলে করোনায় মোট শনাক্তের সংখ্যা হলো ১৩ লাখ ৯ হাজার ৯১০ জনে।

বুধবার (৪ আগস্ট) স্বাস্থ্য অধিদপ্তর থেকে পাঠানো করোনাবিষয়ক নিয়মিত সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।

মঙ্গলবার (৩ আগস্ট) করোনায় মৃতের সংখ্যা ছিল ২৩৫ জন এবং শনাক্তের সংখ্যা ছিল ১৫ হাজার ৭৭৬ জন।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, ২৪ ঘণ্টায় সরকারি-বেসরকারি ৭০৫টি ল্যাবরেটরিতে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে ৫১ হাজার ৯০২টি। এর মধ্যে নমুনা পরীক্ষা করা হয় ৪৯ হাজার ৫১৪ জনের। এ নিয়ে দেশে করোনার মোট নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা দাঁড়াল ৭৯ লাখ ৪৮ হাজার ৬৮৩টি।

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ২৭ দশমিক ৯১ শতাংশ। দেশে প্রথম করোনায় রোগী শনাক্ত হওয়ার পর থেকে এ পর্যন্ত শনাক্তের মোট হার ১৬ দশমিক শূন্য ৪৮ শতাংশ। দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ১৬ হাজার ১১২ জন। ফলে করোনায় সুস্থ হওয়া রোগীর সংখ্যা দাঁড়ালো ১১ লাখ ৪১ হাজার ১৫৭ জন। ২৪ ঘণ্টায় সুস্থতার হার ৮৭ দশমিক ১২ শতাংশ।

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় মৃতদের মধ্যে পুরুষ ১২৫ ও নারী ১১৬ জন। দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুর হার ১ দশমিক ৬৫ শতাংশ। মৃতদের মধ্যে শূন্য থেকে বিশোর্ধ ৫ জন, ত্রিশোর্ধ্ব ২২ জন, চল্লিশোর্ধ্ব ২৫ জন, পঞ্চাশোর্ধ্ব ৫৫ জন, ষাটোর্ধ ৮২ জন, সত্তোরোর্ধ ৩৫ জন, আশির্ধ্ব ১২ জন, ৯০ বছরের বেশি বয়সী ৩ এবং ১০০ বছরের বেশি বয়সী ২ জন মারা যান।

বিভাগওয়ারি হিসেবে মৃতদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ৯৩ জন, চট্টগ্রাম ৬৮ জন, রাজশাহী ১২ জন, খুলনায় ৩৬ জন, বরিশালে ৫ জন, সিলেট বিভাগে ৫ জন, রংপুর বিভাগে ১৫ জন এবং ময়মনসিংহ বিভাগে ৭ জনের মৃত্যু হয়।

এর আগে, দেশে করোনার ইতিহাসে একদিনে সর্বোচ্চ ২৫৮ জনের মৃত্যু হয় ২৭ জুলাই। এছাড়াও ১১ জুলাই ২৩০ জন, ১২ জুলাই ২২০ জন, ১৩ জুলাই ২০৩ জন, ১৪ জুলাই ২১০ জন, ১৫ জুলাই ২২৬ জন, ১৬ জুলাই ১৮৭ জন, ১৭ জুলাই ২০৪ জন, ১৮ জুলাই ২২৫ জন, ১৯ জুলাই ২৩১ জন, ২০ জুলাই ২০০ জন, ২১ জুলাই ১৭৩ জন, ২৬ জুলাই ২৪৭ জন, ২৮ জুলাই ২৩৭ জন, ২৯ জুলাই ২৩৯ জন, ৩০ জুলাই ২১২ জন, ৩১ জুলাই ২১৮ জন, ১ আগস্ট ২৩১ জন এবং ২ আগস্ট ২৪৬ জনের মৃত্যু হয়।

এছাড়া দেশে গত ৭ জুলাই প্রথমবারের মতো করোনায় মৃতের সংখ্যা দুইশ’ ছাড়ায়। এদিন মৃত্যু হয় ২০১ জনের।

২০২০ সালের ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হয় এবং এর ১০ দিন পর ১৮ মার্চ প্রথম এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে একজনের মৃত্যু হয়।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীন থেকে সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর বিশ্বব্যাপী ছড়িয়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। গত বছরের ১১ মার্চ করোনাভাইরাস সংকটকে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ