SylhetNewsWorld | বিআরটিসির বাস চালু নিয়ে পরিবহন নেতাদের সঙ্গে সফল আলোচনা - SylhetNewsWorld
সর্বশেষ

বিআরটিসির বাস চালু নিয়ে পরিবহন নেতাদের সঙ্গে সফল আলোচনা

  |  ০৫:৩৬, ডিসেম্বর ২৯, ২০২০

সিলেট-শ্রীমঙ্গল ও হবিগঞ্জ সড়কে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্পোরেশন (বিআরটিসি) বাস চালু নিয়ে সৃষ্ট অচলাবস্থা নিয়ে বিভাগীয় কমিশনারের উদ্যোগে বিআরটিসির বাস চালু নিয়ে পরিবহন নেতাদের সঙ্গে সফল আলোচনা অনুষ্ঠিত হযেছে।
পরিবহন শ্রমিক ও মালিক সংগঠনের নেতারা জানিয়েছেন, তারা আগামী ১ জানুয়রি তাদের সিদ্ধান্ত জানাবেন। তারা বলেছেন সিলেট ১ আসনের এমপি ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন এবং সড়ক ও সেতু মন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের মান এবং মর্যাদা বিবেচনায় এনে তারা তাদের সিদ্ধান্ত জানাবেন।

সোমবার (২৮ ডিসেম্বর) বিকেল চারটা থেকে আড়াই ঘন্টা সিলেট বিভাগীয় কমিশনার মো. মশিউর রহমানের সভাপতিত্বে সিলেট বিআরটিসি কর্তৃপক্ষ, সিলেট রেঞ্জের ডিআইজি, জেলা প্রশাসক, পুলিশ সুপার, সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ,সিলেট প্রেসক্লাব ও সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাবের সভাপতিসহ বিভিন্ন দপ্তরের সরকারি কর্মকর্তাদের নিয়ে পরিবহন শ্রমিক মালিক সমিতির নেতৃবৃন্দ, পরিবহন শ্রমিক ইউনিয়নের নেতৃবৃন্দের সঙ্গে বৈঠক হয়।
বৈঠক সূত্রে জানা গেছে, পরিবহন মালিক সমিতি ও শ্রমিক ইউনিয়নের নেতারা সিলেট-শ্রীমঙ্গল ও হবিগঞ্জ সড়কে পর্যাপ্ত বাস রয়েছে বলে জানান। সে সঙ্গে বিআরটিসি কর্তৃপক্ষ বাস মালিক সমিতি ও শ্রমিক সংগঠনকে কোনো ভাবে অবহিত না করেই হুট করেই এই দুই রুটে ১২টি বাস নামানোর সিদ্ধান্ত নেন।
এদিকে বিআরটিসি কর্তৃপক্ষ বলেছেন, যাত্রীদের চাহিদার বিষয়টি চিন্তা করেই মন্ত্রণালয় থেকে এ রুটে বাস সার্ভিস চালুর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। যার উদ্বোধন করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রী এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আবদুল মোমেন।
বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সাংগঠনিক সম্পাক ও সিলেট জেলা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক শাহ মো. জিয়াউল কবীর বলেন, বিভাগীয় কমিশনারের সভাপতিত্বে বৈঠকে আমরা মালিক সমিতি ও পরিবহন শ্রমিক নেতারা আমাদের দাবি উত্থাপন করেছি।

বিআরটিসি কর্তৃপক্ষ বাস চালুর কথা বলেছেন। আমরা কয়দিন সময় চেয়েছি। আগামী শুক্রবার বাস চালুর ব্যাপারে আমরা বিভাগীয় কমিশনারকে সিদ্ধান্ত জানাব।

বিআরটিসির সিলেটের ডিপো ব্যবস্থাপক জুলফিকার আলী বলেন, বৈঠকে বাস চালুর ব্যাপারে সিদ্ধান্ত হয়নি। আগামী শুক্রবার পর্যন্ত সিদ্ধান্তের জন্য অপেক্ষা করতে বিভাগীয় কমিশনার নির্দেশ দিয়েছেন। বিভাগীয় কমিশনার বলেছেন বছরের প্রথম দিনে বিআরটিসির বাস সার্ভিস চালুর মাধ্যমে বিভাগের বাসিন্দাদের উপহার হিসেবে থাকবে। তিনি বলেন, শুক্রবার থেকেই বিআরটিসির বাস ওই দুটি রুটে চলাচল করে বলে আমরা আশা করছি।

গত ২২ ডিসেম্বর সিলেট-শ্রীমঙ্গল ও হবিগঞ্জ রুটে চলাচলের জন্য বিআরটিসি সিলেট ডিপোতে শীততাপ নিয়ন্ত্রীত ৪টি বাসসহ ১২টি বাসের উদ্বোধন করা হয়। ওই সময় পরিবহন ধর্মঘট চলায় বাসগুলো সড়কে নামানো হয়নি। গত রোববার এই দুই সড়কে বিআরটিসির দুটি বাসে যাত্রী পরিবহন শুরু হয়। তবে বাসে যাত্রী পরিবহন করতে গিয়ে পরিবহন শ্রমিক ও মালিক সমিতির নেতৃবৃন্দের বাধার মুখে পড়েন বিআরটিসি কর্তৃপক্ষ।
এসময় বিআরটিসি সিলেটের ডিপো ব্যবস্থাপকের ব্যবহৃত যানবাহন ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। পরে পুলিশ খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনে। উদ্ভুত পরিস্থিতিতে বিআরটিসি কর্তৃপক্ষ দুটি রুটে বাস চলাচল বন্ধ করে দেন।

সিলেট-শ্রীমঙ্গল ও হবিগঞ্জ সড়কে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন কর্পোরেশন (বিআরটিসি) বাস চালুর একদিনের মাথায় পরিবহন শ্রমিক ও মালিক সংগঠনের বাধার মুখে বন্ধ হয়ে যায়। গত রোববার চালুর পর বাস সার্ভিস বন্ধ হওয়ার বিষয়টি সমাধানে গতকাল সোমবার বৈঠক করা হয়েছিল। তবে বৈঠকেও কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ