SylhetNewsWorld | গার্মেন্টস খোলায় ফের সংক্রমণ বাড়বে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী - SylhetNewsWorld
সর্বশেষ
 স্পেনে অনুষ্ঠিত হলো বৃহত্তর নোয়াখালী সমিতি’র অভিষেক বাজেট অনুষ্ঠানে মেয়র আরিফের ঘোষণায় বিব্রত সাংবাদিকরা স্পেন থেকে আফগানিস্তান থেকে উদ্ধারকৃত ছয়জন বাংলাদেশীকে দেশে প্রত্যাবর্তন বাংলাদেশ দূতাবাস এথেন্স-এ ইলেক্ট্রনিক পাসপোর্ট সেবার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন স্বাধীনতার সূবর্ন জয়ন্তিতে স্পেনে ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনাল সম্পন্ন বসিলায় জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে একটি বাড়িতে অভিযান, আটক ১ জার্মানি থেকে অবৈধ বাংলাদেশিদের দ্রুত ফেরাতে চায় সরকার অন্যকে বাঁচাতে গিয়ে প্রাণ দিলেন রুশ মন্ত্রী নর্থ মেসিডোনিয়ার হাসপাতালে আগুন, ১০ কোভিড রোগীর মৃত্যু সাবেক কর্মকর্তাদের দেশে ফেরার আহ্বান জানিয়েছেন তালেবান প্রধানমন্ত্রী

গার্মেন্টস খোলায় ফের সংক্রমণ বাড়বে: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

  |  ১৫:১৩, আগস্ট ০১, ২০২১

বিধিনিষেধের মধ্যে গার্মেন্টস খুলে দেয়ার কারণে ফের সংক্রমণ বাড়বে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

রোববার দুপুরে রাজধানীর মহাখালীর বিসিপিএস মিলনায়তনে প্রথম বর্ষের এমবিবিএস ক্লাসের (২০২০-২১) উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ কথা জানান তিনি।

গার্মেন্টস খুলে দেয়ায় আজ থেকে দেশের বিভিন্ন এলাকার মানুষ কর্মস্থলে যোগ দিয়েছে জানিয়ে জাহিদ মালেক বলেন, স্বাস্থ্যবিধি তারা মানেনি। যেকারণে করোনা সংক্রমণ আরো বাড়বে। আর জীবনের জন্য জীবিকার দরকার হয়। কিন্তু সরকারকে সবকিছুই ভাবতে হয়।

দেশের উত্তরাঞ্চলে এখন সংক্রমণ কম জানিয়ে তিনি বলেন, দেশে মধ্যাঞ্চলে সংক্রমণ স্থিতিশীল। আর পূর্বাঞ্চলে (কুমিল্লা) বাড়ছে।

বিশ্বের অনেক দেশ খুলে দিয়েছিল আবার বন্ধ করে দিয়েছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, অস্ট্রেলিয়াতে কারফিউ দিয়েছিল, যুক্তরাষ্ট্রে মাস্ক পড়ার বাধ্যবাধকতা তুলে দিয়েছিল। কিন্তু আবার পড়তে বলেছে। অনেক জায়গায় রেস্টুরেন্ট খুলে দিয়েছিল, আবার বন্ধ করে দিয়েছে। সব জায়গায় একই অবস্থা। তাই আমাদেরকে সবকিছু ভেবেই এগুতে হবে। যাতে সংক্রমণ বৃদ্ধি না পায়। আর সংক্রমণ বৃদ্ধি পেলে মৃত্যুর হার বাড়বে।

বিধিনিষেধ থাকবে কিনা এই প্রশ্নের জবাবে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বিধিনিষেধ থাকতে হবে। আমরা তো এখনও করোনা ফ্রি হইনি। আমাদের দেশে করোনা এখনও ঊর্ধ্বমুখী। তাই বিধিনিষেধ অবশ্যই থাকতে হবে। আর বিধিনিষেধের মধ্যেই তা মেনে কাজ করতে হবে।

‘ আমরা টিকা কর্মসূচি শুরু করেছি। করোনার বিরুদ্ধে এটা একটা বড় হাতিয়ার। কিন্তু আমরা টিকা আগে সেভাবে পাইনি। যেকারণে দিতে পারিনি। কিন্তু এখন প্রত্যেক সপ্তাহে টিকা আসছে। তাই টিকা দেয়ার একটা বড় পরিকল্পনা আমরা হাতে নিয়েছি।

এক কোটি মানুষকে আগামী এক সপ্তাহে টিকার আওতায় নিয়ে আসা হবে তিনি বলেন। টিকার ক্যাম্প আগামী ৭ আগস্ট থেকে করা হবে। আর টিকার জন্য রেজিস্ট্রেশন করা লাগবে না। কেন্দ্রে ভোটার আইডিকার্ড নিয়ে গেলেই হবে। আর যাদের ভোটার আইডিকার্ড নেই, তাদের বিশেষ ব্যবস্থায় টিকা দেয়া হবে।

অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের সিনিয়র সচিব লোকমান হোসেন মিয়া, স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের সচিব আলী নূর প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ