SylhetNewsWorld | মাহির সঙ্গে বিচ্ছেদ নিয়ে যা বললেন সিলেটী দামান্দ অপু - SylhetNewsWorld
সর্বশেষ
 দারুল কিরাত মজিদিয়া ফুলতলি ট্রাস্ট মাদ্রিদ শাখার পুরস্কার বিতরণী সম্পন্ন স্পেনে অনুষ্ঠিত হলো বৃহত্তর নোয়াখালী সমিতি’র অভিষেক বাজেট অনুষ্ঠানে মেয়র আরিফের ঘোষণায় বিব্রত সাংবাদিকরা স্পেন থেকে আফগানিস্তান থেকে উদ্ধারকৃত ছয়জন বাংলাদেশীকে দেশে প্রত্যাবর্তন বাংলাদেশ দূতাবাস এথেন্স-এ ইলেক্ট্রনিক পাসপোর্ট সেবার আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন স্বাধীনতার সূবর্ন জয়ন্তিতে স্পেনে ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনাল সম্পন্ন বসিলায় জঙ্গি আস্তানা সন্দেহে একটি বাড়িতে অভিযান, আটক ১ জার্মানি থেকে অবৈধ বাংলাদেশিদের দ্রুত ফেরাতে চায় সরকার অন্যকে বাঁচাতে গিয়ে প্রাণ দিলেন রুশ মন্ত্রী নর্থ মেসিডোনিয়ার হাসপাতালে আগুন, ১০ কোভিড রোগীর মৃত্যু

মাহির সঙ্গে বিচ্ছেদ নিয়ে যা বললেন সিলেটী দামান্দ অপু

  |  ০৫:৪১, মে ২৪, ২০২১

মাহিয়া মাহি তার পাঁচ বছরের সংসারে ভাঙ্গনের ইঙ্গিত দিয়েছেন এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে। বিষয়টি আরও পরিষ্কার করে জানিয়ে দিলেন তার স্বামী পারভেজ মাহমুদ অপু। তিনি বলছেন, আইনিভাবে ছাড়াছাড়ি হয়নি। তবে শিগগির আইনি প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে।

পারভেজ মাহমুদ অপু বলেন, ‘পরিষ্কার করে বলছি, আমরা একসঙ্গে আর থাকতে পারছি না। দুজনের কিছু জায়গায় মিলছে না। মতের অমিল হচ্ছে, এজন্য একসঙ্গে থাকা সম্ভব হচ্ছে না। সেজন্য আমরা আলাদা হয়ে যাচ্ছি।’

তবে মাহিয়া মাহির সঙ্গে সম্পর্ক এখনো ভালো আছে বলে জানান পারভেজ মাহমুদ অপু। তার কথায়, ‘আমরা আলাদা থাকিনি। একসঙ্গে যাওয়া-আসা, কথা আছে। রোজার সময় আমাকে নিয়ে সে ফেসবুকে ছবিও পোস্ট করেছে। তবে আমরা আলাদা হয়ে যাচ্ছি। পরিবার জানিয়েছে, সংসার যেহেতু আমাদের, সিদ্ধান্তটাও যেন আমরাই নিই। তাই একসঙ্গে থাকা বা না থাকার সিদ্ধান্ত আমার। তাই আল্টিমেট সিদ্ধান্ত মাহির সঙ্গে আমার ছাড়াছাড়ি হয়ে যাচ্ছে।’ অপু জানান, এখনো তারা স্বামী-স্ত্রী। আইনিভাবে ছাড়াছাড়ি হয়নি। তবে শিগগির আইনি প্রক্রিয়া সম্পন্ন হবে।

সিলেটের ব্যবসায়ী পারভেজ মাহমুদ অপুকে ২০১৬ সালে বিয়ে করেছিলেন চিত্রনায়িকা মাহিয়া মাহি। বেশ সুখী দম্পতি হিসেবেই পরিচিত ছিলেন তারা। যদিও বেশ কয়েকবার ভাঙনের গুঞ্জন উঠেছে। তবে প্রতিবারই স্বামীর সঙ্গে রোমান্টিক ছবি কিংবা স্ট্যাটাসে সেসব গুঞ্জন উড়িয়ে দিয়েছেন ‘অগ্নি’কন্যা মাহি। এবার আর কোনো গুঞ্জন নয়, তা মাহির স্বামীও জানিয়ে দিলেন।

গতকাল শনিবার রাতে মাহি ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে লিখেছেন, এই পৃথিবীর সবচেয়ে ভালো মানুষটার সাথে থাকতে না পারাটা অনেক বড় ব্যর্থতা। পৃথিবীর শ্রেষ্ঠ শ্বশুরবাড়ির মানুষগুলোকে আর কাছ থেকে না দেখতে পাওয়াটা, বাবার মুখ থেকে মা জননী, বড় বাবার মুখ থেকে সুনামাই শোনার অধিকার হারিয়ে ফেলাটা সবচেয়ে বড় অপারগতা। আমাকে মাফ করে দিও। তোমরা ভালো থেকো। আমি তোমাদের আজীবন মিস করব।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ