এম সি কলেজের এইচএসসি’৯৪ ব্যাচের মিলনমেলা আজ

প্রকাশিত: ১১:০৯ পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২৪ | আপডেট: ১১:০৯:পূর্বাহ্ণ, ফেব্রুয়ারি ৩, ২০২৪

এম সি কলেজের এইচএসসি’৯৪ ব্যাচের(শিক্ষাবর্ষ ১৯৯২-৯৩) বন্ধুদের এক মিলনমেলা আজ (৩ ফেব্রুয়ারি) শনিবার নগরীর এয়ারপোর্ট রোড সংলগ্ন সিলেট ক্লাব লিমিটেডে অনুষ্ঠিত হবে।এতে সংশ্লিষ্ট সকলকে যথাসময়ে উপস্থিত থাকতে অনুরোধ জানিয়েছে অনুষ্ঠান বাস্তবায়নে দায়িত্বপ্রাপ্ত আহবায়ক কমিটি।

গতকাল শুক্রবার এক যৌথ বিবৃতিতে কমিটির আহবায়ক ছাতক ইউনিয়ন এসইডিপি মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. কামাল উদ্দিন,সদস্য শাবিপ্রবি’র পরিসংখ্যান বিভাগের প্রফেসর ড. খালেদুর রহমান,পুলিশ সুপার মো: জাবেদুর রহমান,ব্যবসায়ী ফয়জুর রহমান,সিলেট সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলর শওকত আমীন তৌহিদ,সিলেট শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. মিজানুর রহমান,এম সি কলেজের পরিসংখ্যান বিভাগের চেয়ারম্যান ও সহযোগী অধ্যাপক মো.মহসিন আলী,সাউথ ইস্ট ব্যাংক চৌহাট্রা শাখা ব্যবস্থাপক শুয়েবুর রহমান, ইসলামী ব্যাংক চুনারুঘাট শাখা ব্যবস্থাপক আবু সাদাত মো. মওদুদ আহমদ,এম সি কলেজের গণিত বিভাগের সহকারী অধ্যাপক মো. কামারুজ্জামান আলমগীর,সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক বিভূতিভূষণ দাশ,দৈনিক আলোকিত সিলেটের ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক ও সিলেট অনলাইন প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি গোলজার আহমদ হেলাল, ব্যবসায়ী তানিম দত্ত ছোট,প্রবাসী হিকমত আল শিহাব চৌধুরী,ইউকে প্রবাসী জালাল উদ্দিন,সুনামগঞ্জ সরকারী জুবিলী উচ্চ বিদ্যালয়ের শিক্ষক গোলাম দস্তগীর টিপু ও সার্ক ইন্টারন্যাশনাল কলেজের প্রিন্সিপাল মহিউদ্দিন ফারুক এ অনুরোধ জানান।

উল্লেখ্য,করোনাকালে কতিপয় বন্ধুর উদ্যোগে সোস্যাল মিডিয়া প্লাটফর্ম হিসেবে হোয়াটস গ্রুপ চালু করা হয়।ছাতকের বন্ধু মো. কামাল উদ্দিন ২০২০ সালের ২৩ জানুয়ারী হোয়াটস গ্রুপটি তৈরী করেন।মোট ৩০০ জন শিক্ষার্থীদের মধ্যে দেশ-বিদেশে অবস্থানরত ১৮৪ জন বন্ধু এই গ্রুপের সদস্য হিসেবে বর্তমানে যুক্ত রয়েছেন।আজকের মিলনমেলায় সর্বশেষ পাওয়া তথ্যমতে ১০৩ জন অংশগ্রহণ করবেন।বিবৃতিতে জানানো হয়,সকাল ১১টার মধ্যে ভেন্যুতে রিপোর্টিং করতে হবে।দিনব্যপী অনুষ্ঠানসূচীর মধ্যে সুইমিং পুলে সাঁতার কাটা,স্মৃতিচারণ,দুপুরের খাবার,কমিটি গঠন ও ভবিষ্যত করণীয় শীর্ষক আলোচনা,সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান,বৈকালিক নাস্তা ও রাফেল ড্র ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য।এছাড়া অংশগ্রহণকারীদের নাম, ঠিকানা ও ছবি সম্বলিত ক্ষুদ্র একটি স্মরণিকা প্রকাশ করা হবে।

জনপ্রতিনিধি,প্রশাসন,পুলিশ,সাংবাদিক,চিকিৎসক,প্রকৌশলী,শিক্ষক,আইনজীবি,ব্যবসায়ী,ব্যাংকার,কৃষি উদ্যোক্তা,প্রাইভেট ও কর্পোরেট সেক্টর,সিএ,সরকারী চাকুরী,প্রবাসে কর্মরতসহ নানা পেশায় কর্মরত আছেন সহপাঠিরা।অতীত স্মৃতি,পারস্পরিক সম্পর্ক,সামাজিক যোগাযোগ,বন্ধুত্ব ও ভালোবাসার মহতী উদ্দেশ্যে নব উদ্যমে এ পথচলা শুরু হয়েছে।