সিলেটে করোনায় মৃত্যুর পথযাত্রী ৩০০

প্রকাশিত: ১১:৪৪ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ১১, ২০২১

সিলেটে করোনায় মৃত্যুর পথযাত্রী ৩০০

প্রাণঘাতী কোভিড-১৯ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে সিলেটে শূণ্য কোঠা থেকে মৃত্যুর মিছিলের যাত্রী হয়েছেন ৩০০জন।

গত বছরের ৫ এপ্রিল সিলেটে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছিলনে তিনি ছিলেন একজন চিকিৎসক।তার নাম হচ্ছে ডা. মঈন উদ্দিন।

আক্রান্ত হওয়ার ১০দিনের মাথায় ১৫ এপ্রিল ঢাকার কুর্মিটোলা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। করোনা আক্রান্ত হয়ে দেশে প্রথম মৃত্যু হয় এই চিকিৎসকের।

গত এক বছরে করোনা ভাইরাসে সেই মৃত্যুর মিছিল ট্রিপল সেঞ্চুরিতে পৌঁছেছে। আর সারাদেশে মৃত্যুর সংখ্যা ১০ হাজার ছুঁই ছুঁই। শনিবার পর্যন্ত দেশে করোনায় মোট নয় হাজার ৬৬১ জনের মৃত্যু হয়েছে।

এদিকে সরকার থেকে বার বার সর্তক ও সবাই স্বাস্থ্যবিধি না মানলে জরিমানা করা হলো মানুষের মাঝে চিত্র ভিন্ন। লকডাউনের মধ্যেও সিলেট মহানগীতে দেখা যায় অপরের শরীর ঘেঁষে চলাচল করছে শত শত মানুষ, আর রাস্তায় যানবাহনের দীর্ঘ সারি। অথচ সারাদেশে লকডাউন বলা হচ্ছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর সিলেটের সহকারি পরিচালক ডা. আনিসুর রহমানের দেওয়া তথ্য মতে, শনিবার (১০ এপ্রিল) ২৪ ঘণ্টার হিসাবে সিলেট বিভাগে ১৯৫ জন আক্রান্ত হয়েছেন। যা গত নয় মাসের আক্রান্তের পরিসংখ্যানকে ছাড়িয়ে গেছে। মৃতের সংখ্যা পৌঁছেছে ৩০০ জনে।

সিলেটের শহীদ ডা. শামসুদ্দিন হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার সুশান্ত মহাপাত্র বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় দুই জনের মৃত্যু হয়েছে। করোনা আক্রান্ত ৩৭ জনসহ হাসপাতালে ভর্তি আছেন ৭৮ জন। এছাড়া এর মধ্যে ১৪ জন আইসিইউতে ভর্তি রয়েছেন।

সিলেট বিভাগে এ পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া ৩০০ জনের মধ্যে সর্বোচ্চ সিলেট জেলায় ২৩০ জন, সুনামগঞ্জে ২৬ জন, হবিগঞ্জে ১৮ জন এবং মৌলভীবাজার জেলায় ২৫ জন মারা গেছেন।

বিভাগে গত এক বছরের ১৮ হাজার ৫৩৩ জন আক্রান্ত হয়ে ১৬ হাজার ৬৯৯ জন সুস্থ হয়েছেন। আর মৃত্যু হয়েছে ৩০০ জনের।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ