সম্ভাবনাময় বিজ্ঞানী জৈন্তাপুরের শমিত মনসুর: পিএইচডি ডিগ্রি লাভ

প্রকাশিত: ৬:৩৬ অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৯, ২০২৩ | আপডেট: ৬:৩৬:অপরাহ্ণ, ডিসেম্বর ৯, ২০২৩

জৈন্তাপুরের কৃতি সন্তান ডক্টর শমিত মনসুর পিএইচডি ডিগ্রি লাভ করেছেন। আমেরিকার আলাবামা বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োটেকনোলজি ও কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ থেকে তিনি এ ডিগ্রি অর্জন করেন।ডক্টর শমিত মনসুরের পিএইচডি গবেষণার বিষয় ছিল ‘ক্যান্সার ড্রাগের ন্যানো পার্টিকুলের কার্যকারিতার উপর বিশদ গবেষণা।’

ডক্টর শমিত মনসুর সিলেট জেলার জৈন্তাপুর উপজেলার দরবস্ত গ্রামের এক সম্ভ্রান্ত পরিবারে জন্ম গ্রহণ করেন। তাঁর দাদা মরহুম মনসুর বৃহত্তর জৈন্তার প্রথম গ্র্যাজুয়েট এবং বৃটিশ ভারতের সময় বৃহত্তর জৈন্তার একমাত্র এসিএস অফিসার তথা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ছিলেন। শমিত মনসুরের বাবা জৈন্তাপুরের কৃতি সন্তান প্রখ্যাত চিকিৎসক মোঃ মুনীর ও মা রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের দর্শন বিভাগের অধ্যাপক শামীমা আক্তার। শমিত মনসুর রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় স্কুল থেকে প্রাইমারি ও জুনিয়র বৃত্তি পরীক্ষায় কৃতিত্বের সাথে উত্তীর্ণ হয়ে বৃত্তি পেয়ে ২০০৯ সালে ঢাকার বিখ্যাত রাজউক উত্তরা মডেল কলেজ ভর্তি হন।২০১১ সালে গোল্ডেন জিপিএ ফাইভ পেয়ে এসএসসি এবং ২০১৩ সালে এইচএসসি পাস করে ২০১৪ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ফলিত রসায়ন ও কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং এ ভর্তি হন। ২০১৮ সালে উক্ত বিভাগ থেকে কৃতিত্বের সাথে গ্র্যাজুয়েশন লাভ করেন।পরে আমেরিকার আলাবামা বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োটেকনোলজি ও কেমিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগে পূর্ণ বৃত্তি (বাৎসরিক ৫৬ হাজার ডলার ) নিয়ে পিএইচডি ফেলোশিপের জন্য মনোনীত হয়ে ২০১৯ সালের ১০ই আগষ্ট আমেরিকা যাত্রা করেন। উক্ত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে কৃতিত্বের সাথে মাস্টার্স সম্পন্ন করে অবশেষে গত ৮ ডিসেম্বর অত্যন্ত সাফল্যের সাথে ক্যান্সার ড্রাগের ন্যানো পার্টিকুলের কার্যকারিতার উপর বিশদ গবেষণায় পিএইচডি ডিগ্রি অর্জন করেন। বর্তমানে তিনি আমেরিকার উইন্ডার কেমিক্যাল ল্যাবরেটরিতে রিসার্চ এন্ড ডেভেলপমেন্ট সাইনটিষ্ট হিসাবে মনোনীত হয়ে আগামী ১৮ই ডিসেম্বর যোগদান করার কথা। ব্যক্তিগত জীবনে তিনি বিবাহিত এবং তাঁর সহধর্মিণীর নাম ডাক্তার আনিকা ফারহিন নম্রিতা।