SylhetNewsWorld | কী চায় তালেবান, যা বললেন ইমরান খান - SylhetNewsWorld
সর্বশেষ
 চট্টগ্রামে প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশের সাথে পরিবেশ-বান্ধব নৌপরিবহন সেক্টর গড়ে তুলতে যুক্তরাজ্যের আগ্রহ প্রকাশ হিজাব ইস্যুতে বিক্ষোভে নিহত ২০০, স্বীকার করলো ইরান খালেদা জিয়ার বাসার সামনে পুলিশের তল্লাশি চৌকি সেচ্ছাসেবক দল সুইডেন শাখার সদস্য সংগ্রহ কর্মসূচি সিলেটে লিভার সংক্রান্ত সচেতনামূলক সভা অনুষ্ঠিত অশ্রুঝরা মুনাজাতে লাখো মানুষের ‘আমিন’ ধ্বনি : সমাপ্ত হলো ঐতিহাসিক ইজতেমা সিলেটে কর্মরত সাংবাদিকদের সাথে মতবিনিময় করলেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এডভোকট নাসির উদ্দিন খান সামাদ আজাদ ও ড. হারিছ আলী স্মৃতি বৃত্তি-২০২২ পরীক্ষা অনুষ্ঠিত স্পেনে বৃহত্তর কুমিল্লা সমিতির অভিষেক অনুস্টিত

কী চায় তালেবান, যা বললেন ইমরান খান

  |  ১৬:৫৫, আগস্ট ১২, ২০২১

আফগানিস্তানে নিরাপত্তা বাহিনী এবং তালেবানের মধ্যে তীব্র লড়াই চলছে। ইতোমধ্যে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের পরাজিত করে বিভিন্ন এলাকার নিয়ন্ত্রণ নিচ্ছে তালেবান। এমন সময় উভয়পক্ষকে যুদ্ধবিরতি মেনে নেওয়ার জন্য আলোচনায় বসার আহ্বান জানানো হলেও তালেবান কী করবে সম্পর্কে স্পষ্টভাবে জানিয়ে দিলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী বলেন, যতদিন আশরাফ ঘানি আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট থাকবে ততদিন সরকারের সঙ্গে কোনো আলোচনায় বসবে না তালেবান।

ইসলামাবাদে বিদেশি সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন। খবর এনডিটিভির।

ইমরান খান বলেন, বর্তমান পরিস্থিতিতে আফগানিস্তানে সংকটের রাজনৈতিক নিষ্পত্তি কঠিন মনে হচ্ছে।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী বলেন, তারা (তালেবান) যখন এখানে এসেছিল আমি তাদের বোঝানোর চেষ্টা করেছিলাম। তাদের কথা হলো, যতক্ষণ আশরাফ ঘানি আছেন, ততক্ষণ আমরা (তালেবান) আফগান সরকারের সঙ্গে কথা বলব না।

এর আগে তালেবানকে সহায়তা করার জন্য পাকিস্তানের সমালোচনা করেছিলেন আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানি। এদিকে আফগানিস্তানের সরকার নিয়ন্ত্রিত এলাকায় সহিংসতা যত বাড়ছে দেশটির নাগরিকরা ততই পাকিস্তানের ওপর ক্ষোভে ফুঁসছেন। লাখ লাখ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারকারী টুইটারে পাকিস্তানের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের দাবি জানাচ্ছেন।

দীর্ঘ ২০ বছর পর আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার করতে যাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। আগস্টেই প্রত্যাহার প্রক্রিয়া শেষ করবে দেশটি। এর মধ্যেই তালেবান ৯ প্রদেশের রাজধানীসহ দেশের প্রায় অর্ধেকের বেশি জেলার দখল নিয়ে নিয়েছে। দেশের অধিকাংশ অঞ্চলেই চলছে সংঘাত।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ