SylhetNewsWorld | ভারতের বিরুদ্ধে ভ্রমণ বিধিনিষেধ শিথিল করছে বৃটেন, বাংলাদেশ এখনো লাল তালিকায় - SylhetNewsWorld
সর্বশেষ

ভারতের বিরুদ্ধে ভ্রমণ বিধিনিষেধ শিথিল করছে বৃটেন, বাংলাদেশ এখনো লাল তালিকায়

  |  ১৪:৪৭, আগস্ট ০৫, ২০২১

ভারতের ওপর থেকে করোনা বিষয়ক ভ্রমণ বিধিনিষেধ শিথিল করছে বৃটেন। এর ফলে ভারত থেকে যাওয়া কোনো ভ্রমণকারীকে বাধ্যতামূলকভাবে ১০ দিনের জন্য হোটেলে আর কোয়ান্টিনে থাকতে হবে না। পরিবর্তিত এই নির্দেশনা কার্যকর হচ্ছে ৮ই আগস্ট থেকে। এর ফলে হাজার হাজার ভারতীয়, বিশেষ করে শিক্ষার্থী, পেশাদার এবং বৃটেনে যাদের পরিবার আছে- তাদের জন্য ব্যাপক সুবিধা হবে বলে মনে করা হচ্ছে। ভারতে করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউ শুরুর পর থেকে এসব মানুষের বৃটেন সফরে নিষেধাজ্ঞা ছিল। এ খবর দিয়েছে অনলাইন হিন্দুস্তান টাইমস।

করোনা ভাইরাস সংক্রমণের কারণে আন্তর্জাতিক ভ্রমণকারীদের জন্য বৃটেন লাল-হলুদ-সবুজ ট্রাফিক লাইট রেটিং করে। এই তালিকায় লাল রেটিংয়ে ছিল ভারত, বাহরাইন, কাতার ও সংযুক্ত আরব আমিরাত।

বুধবার ওই তালিকা ও পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে এ দেশগুলোকে ‘লাল’ রেটিং থেকে ‘হলুদ’ রেটিংয়ে নামিয়ে আনা হয়। হিন্দুস্তান টাইমস লিখেছে, বৃটিশ হাই কমিশনের এক বিবৃতি অনুযায়ী, এই পরিবর্তন ভারতের জন্য কার্যকর হবে ৮ই আগস্ট সকাল ৪টা থেকে। ভারত থেকে বৃটেনে ভিজিট ভিসা মুক্ত করা হবে।

ভারত থেকে যেসব ভ্রমণকারী বৃটেনে যাবেন তারা ১০ দিনের জন্য নিজেদের বাসস্থানে অথবা যেখানে তারা থাকবেন সেখানে কোয়ারেন্টিনে থাকতে পারবেন। তাদের জন্য হোটেলে কোয়ারেন্টিন বাধ্যতামূলক নয়। বৃটেন সফরের কমপক্ষে তিন দিন আগে ভারতীয়দেরকে করোনা ভাইরাসের পরীক্ষা করাতে হবে। বৃটেনে পৌঁছার পর থাকার ব্যবস্থা তাদেরকে করতে হবে এবং এর খরচ নিজেদেরকে বহন করতে হবে। একই সঙ্গে পৌঁছার পর তারা কোথায় থাকবেন সে বিষয়ে একটি ফরম পূরণ করতে হবে।

এদিকে ফ্রান্স থেকে সম্পূর্ণ ডোজ ভ্যাকসিন নেওয়া ব্যক্তিরা ৮ আগস্টের পর থেকে কোয়ারেনটাইনে না থেকেই সরাসরি ইংল্যান্ড, স্কটল্যান্ড ও নর্দান আয়ারল্যান্ডে প্রবেশ করতে পারবে। বিবিসি

যুক্তরাজ্যে ভ্রমনবিধির নীতি অনুযায়ী অ্যাম্বার তালিকায় প্রবেশ করলো ফ্রান্স। তবে মেক্সিকোতে অবস্থানকারী কয়েক হাজার ব্রিটিশ নাগরিক এখন লাল তালিকাভুক্ত হয়েছে। মেক্সিকো এখন সর্বোচ্চ ঝুঁকিপ্রবণ চারটি এলাকার মধ্যে একটি। সবুজ তালিকায় নতুন করে যোগ হওয়া সাতটি দেশের মধ্যে রয়েছে জার্মানি, অস্ট্রিয়া ও নরওয়ে।

এতে সবুজ তালিকাভুক্ত দেশের সংখ্যা ২৯ থেকে বৃদ্ধি পেয়ে ৩৬ হলো। সবুজ তালিকাভুক্ত দেশগুলো কোয়ারেনটাইনে না থেকেই সরাসরি যুক্তরাজ্যে প্রবেশ করতে পারবে। তবে একেক দেশের পর্যটকদের ক্ষেত্রে একেক ধরনের নিয়ম রয়েছে। তাই যুক্তরাজ্যের সবুজ তালিকাভুক্ত দেশগুলো যে অন্য দেশেও কোয়ারেনটাইন ছাড়া প্রবেশাধিকার পাবে এমন কোনো নিশ্চয়তা নেই।

এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ